পুলিশের তাড়া খেয়েই উলঙ্গ হয়ে হাওড়া ব্রিজের উপর ছুটলেন অটোচালক

লকডাউনের ভোরে গঙ্গাস্নান একটু অন্যরকম। নিস্তব্ধ, শুনশান ঘাট। কাকপক্ষী ছাড়া কারও উপস্থিতি নেই। এমন দিনে গঙ্গাবক্ষে অবগাহন – অনন্য অভিজ্ঞতাই বটে। সেই অভিজ্ঞতা অর্জনের জন্য তিন বন্ধুকে নিয়ে অটো চালিয়ে গঙ্গায় গিয়েছিলেন হাওড়ার এক চালক। স্নানও হল নির্বিঘ্নে। তারপর ফেরার পথেই বিপত্তি। পুলিশের তাড়া খেয়ে অটোচালক যা করলেন, তা দেখে তাজ্জব টহলরত পুলিশরাও! উলঙ্গ হয়ে হাওড়া ব্রিজের উপর দিয়ে লাগালেন দৌড়। কোনওক্রমে তাঁকে ধরে অটো ও সওয়ারি সমেত নিয়ে যাওয়া হল নর্থ পোর্ট থানায়।

আজ রাজ্যে সম্পূর্ণ লকডাউন । কলকাতা ও জেলার কোথাও কোথাও সকাল থেকে লকডাউন উপেক্ষা করে মানুষজনের বাইরে বেরনোর ছবি দেখা গিয়েছে। পুলিশ কড়া হাতে তা মোকাবিলাও করেছে। কিন্তু হাওড়া ব্রিজের একটি ঘটনা রীতিমতো স্তম্ভিত করে দিয়েছে পুলিশ কর্তাদের। লকডাউন উপলক্ষে নাকা চেকিং চলছি হাওড়া ব্রিজে। ব্যারিকেড দিয়ে বন্ধ করে রাখা হয়েছিল ব্রিজে ওঠার রাস্তা। এমনিতে লকডাউনের দিনগুলোয় হাওড়া ব্রিজের মতো হাই সিকিউরিটি জোনে কোনও নিয়মভঙ্গের ঘটনা ঘটেনি। তবে পুলিশি টহল রয়েছেই।

এদিন সকালে টহলরত পুলিশদের হঠাৎ চোখে পড়ে, হাওড়া ব্রিজের দিকে এগিয়ে আসছে একটি অটো। ব্রিজের ওঠার মুখে রাস্তায় যে ব্যারিকেড দেওয়া, সেই ব্যারিকেড ভেঙেই ব্রিজে উঠেও পড়েছে অটোটি। সঙ্গে সঙ্গে বাইক নিয়ে পুলিশ সেই অটোকে তাড়া করে। হাওড়া ব্রিজের ঠিক মাঝামাঝি গিয়ে অটো আটকানো হয়। দেখা যায়, ভিতরে তিনজন যাত্রী। সকলের গা ভেজা, মদ্যপ। চালককে অটো থেকে বের করে পুলিশ জানতে চায় কেন লকডাউনে বাইরে বেরিয়েছে? তাও আবার যাত্রীদের নিয়ে। চালক জানায়, তিন বন্ধুকে নিয়ে সে গঙ্গাস্নানে গিয়েছিল। এই উত্তর শুনে পুলিশ তাকে পালটা জানায় যে লকডাউনের নিয়ম ভঙ্গের জন্য থানায় যেতে হবে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, থানায় যাওয়ার কথা শুনেই অটোচালক পরনের গামছাটি খুলে ফেলে। একেবারে অনাবৃত হয়ে ব্রিজের উপর দিয়ে দৌড়তে থাকে। যদিও দৌড়ে পার পায়নি সে। পুলিশ ফের ধরে ফেলে তাকে। তিন যাত্রীসমেত অটো এবং চালককে সোজা নিয়ে যাওয়া হয় উত্তর বন্দর থানায়। এদের বিরুদ্ধে সরকারি নিয়মভঙ্গের জন্য সুনির্দিষ্ট আইনে মামলা দায়ের হবে। নিয়ম মাফিক শাস্তিও হবে। তবে এসব থেকে বাঁচতে হাওড়ার ওই অটোচালক যে উপায় অবলম্বন করল, সেই মজার কথা মনে থেকে যাবে পুলিশ কর্তাদের।

মন্তব্য করুন

আপনার ইমেইল প্রকাশ করা হবে না

আপনি এই HTML ট্যাগ এবং মার্কআপগুলো ব্যবহার করতে পারেন: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>

*